1. admin@godagarinews24.com : admin :
মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১০:৩৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
মতিহার থানা পুলিশের মিথ্যা মামলা থেকে বাঁচতে ভুক্তভোগী পরিবারের সংবাদ সম্মেলন গোদাগাড়ীতে দুই শিশু চাচাতো ভাই বোন গোসল করতে যেয়ে পানিতে ডুবে মৃত্যু রাজশাহীর গোদাগাড়ী থেকে ০২ টি ওয়ান শুটার গান ও ১৪২ বোতল ফেন্সিডিলসহ অস্ত্র ব্যবসায়ী রাশিকুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব-৫ গোদাগাড়ীতে রক্ষাগোলা আয়োজনে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী জনগণের নিয়ে ভূমি সংক্রান্ত মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে এক গৃহবধূকে হত্যা করে পালিয়েছে স্বামী গোদাগাড়ীতে ভাসুরের বিরুদ্ধে ধর্ষণ চেষ্টা অভিযোগে মামলা নওগাঁয় আমিন সমিতির বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত রাজশাহীতে বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস পালন মান্দায় ভুল অপারেশনে প্রসূতির মৃত্যুর অভিযোগ উপজেলা নির্বাচন কমছে সময় বেড়েছে দৌড়ঝাঁপ

তানোরে এক পুকুরে নির্ভরশীল ২০টি পরিবারকে জিম্মি করছেন এন্তাজ !

  • আপডেট সময় : সোমবার, ২৯ জানুয়ারি, ২০২৪
  • ১৭৬ বার পঠিত

সোহানুল হক পারভেজ তানোর(রাজশাহী)

রাজশাহীর তানোর উপজেলার সুকদেবপুর গ্রামের ২০ পরিবার ১ টি পুকুরের ওপর নির্ভরশীল। জানাগেছে দিন-রাত ২০ পরিবার ওই পুকুরের উপর নির্ভরশীল । ২০ পরিবারের বাড়ির মটারের পানির নিষ্কাশনের জন্য এই পুকুরের ওপরই নির্ভর করতে হয় তাদের।

শুনতে অবাক লাগলেও তানোর উপজেলার সরনজাই ইউনিয়নের সুকদেবপুর গ্রামের ইদ্রিস আলীর পুত্র ইন্তাজ আলীর পুকুর থেকে থালি বাসুনসহ কিছু প্রয়োজনীয় কাজ করেন শুকদেবপুর গ্রামের ২০টি পরিবার ।
স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সুকদেবপুর গ্রামের মানুষ মুন্নাকুড়ি নামক পুকুরে ইদ্রিস আলির পুত্র এন্তাজ আলীর পুকুর থেকে ২০ পরিবারকে জিম্মি করছেন তিনি ।

এই পুকুর থেকেই পানি নামার বিষয়ে কথা হয় ভুক্তভোগী একই গ্রামের তসলিম উদ্দিন এর পুত্র রুবেল রানার সাথে এ বিষয়ে বলেন, ২০ পরিবারের থালি বাসুন এবং বাড়ির মোটারের পানি সে পুকুরে পড়ে কিন্তু এখন সে কোন জাদুর ইসারায় দমভক্তি প্রকাশ করছেন এবং ২০ পরিবারকে জিম্মি করছেন তিনি প্রতিদিন সে, তার মা ও বাবাসহ এন্তাজ আলীর বাড়ির সকল পানি তার পুকুরে পড়লেও একই গ্রামের ২০টি পরিবারকে পানি না নামিয়ে দম্ভক্তি প্রকাশ করছেন তিনি এ নিয়ে চরম বেকায়দায় পড়ছেন ৪ নং সরনজাই ইউপি ৩ নাম্বার ওয়ার্ডের ২০ পরিবার। এ বিষয়ে এন্তাজ আলীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি সকালের সময়কে দমভক্তি প্রকাশ করে বলেন, আমার পুকুরে আমি কোন কিছুই করতে দিব না তাদের যা কিছু করার তারা করে নিক বলে দম্ভক্তি প্রকাশ করেন তিনি ।

একই গ্রামের হাসিম সরদার বলেন, আমার পানি নামতে না দিয়ে আমার উপর অনেক নির্যাতনের শিকার হয়েছি আমিসহ একই গ্রামের ২০ পরিবার এ নিয়ে চরম বেকায়দায় পড়েছি আমরা ন্যায় বিচার না পেয়ে প্রশাসনের ও ইউপি চেয়ারম্যান সুদৃষ্টি কামনা করছেন ২০ পরিবার। এ বিষয়ে সরনজাই ইউপি চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক খান বলেন,বিষয়টি দুঃখজনক খুব দ্রুত এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

Facebook Comments Box
এই জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৩ গোদাগাড়ী নিউজ 24
Theme Customized By Shakil IT Park